পড়াশোনা

পড়াশোনা – মাধ্যমিকের প্রস্তুতি

গত ১৭ নভেম্বর থেকে আমাদের রাজ্যে শুরু হয়েছে মধ্যশিক্ষা পর্ষদ আয়োজিত টেস্ট পরীক্ষা বিদ্যালয়গুলিতে, টেস্ট এর পরেই মাধ্যমিকের প্রস্তুতিকিভাবে মাধ্যমিকের জন্য প্রস্তুত হবে ছাত্র-ছাত্রীরা, সেই নিয়ে আলোচনায় শিক্ষিকা রূপাঞ্জলি সরকার

আমরা জানি আমাদের জীবনে মারণ ব্যাধি করোনা সকল ছাত্র-ছাত্রীদের পড়া ও তাঁদের পরীক্ষা পদ্ধতির ওপর যথেষ্ট কু-প্রভাব ফেলেছে। আমাদের রাজ্যের ২০২১ ব্যাচের মাধ্যমিক পরীক্ষা নেওয়া হলেও কিন্তু তা পুরো সিলেবাস অনুযায়ী নেওয়া হয় নি। যদিও করোনার করাল থাবা থেকে আমরা কিছুটা হলেও মুক্ত হতে পেরেছি, তাই এই বছর অর্থাৎ ২০২২এ মাধ্যমিক পরীক্ষা কিন্তু পুরো সিলেবাস অনুযায়ীই নেওয়া হবে। ইতিমধ্যেই গত ১৭ নভেম্বর থেকে আমাদের রাজ্যে শুরু হয়েছে মধ্যশিক্ষা পর্ষদ আয়োজিত টেস্ট পরীক্ষা বিদ্যালয়গুলিতে।

এখনও আমাদের ছাত্র-ছাত্রী এবং অভিভাবক-অভিভাবিকাঅনেকেই কিন্তু টেস্ট পরীক্ষার বিষয়ে কিছুটা হলেও উদাসীন। আসল ব্যাপার হলো মাধ্যমিক পরীক্ষায় বসার চাবি কাঠি কিন্তু টেস্ট পরীক্ষা। আর এই মুহূর্তের পরিস্থিতিতে দাঁড়িয়ে একটা বিষয় মাথায় রাখা খুবই প্রয়োজনীয়, সেটি হলো যদি আবার করোনার প্রাদুর্ভাব বৃদ্ধি পায়, এবং সেই কারণে মাধ্যমিক পরীক্ষা যদি আগামীতে আবারও নেওয়া সম্ভব না হয়, তখন কিন্তু এই টেস্ট পরীক্ষার ফলাফলের ওপর নির্ভর করেই তৈরি হবে মাধ্যমিক পরীক্ষার চূড়ান্ত ফলাফল। তবে আমরা অতি অবশ্যই আশা করবো আগামীতে আমাদের সমাজ জীবনে করোনা তার করাল থাবার গ্রাস আর বিস্তার করতে সমর্থ হবে না।

যে সকল ছাত্র-ছাত্রী এই মুহূর্তে টেস্ট পরীক্ষায় অবর্তীর্ণ,  তাঁদের উদ্দেশ্যে বলি টেস্ট পরীক্ষার পরবর্তী সময়ে পড়াশোনার পরত্রই আরও বেশি করে নজর দিতে হবে। আসল কথা হল টেস্ট পরীক্ষার মধ্য দিয়ে খামতিগুলো সম্বন্ধে অবগত হবে।

পরীক্ষায় ভাল ফল করার কয়েকটি টিপস বা উপায়

(ক) যতটা সম্ভব রিডিং পড়া এবং বুঝে পড়তে হবে।

(খ) মুখস্ত না করে নিজের ভাষায় লেখার চেষ্টা করতে হবে, তাতে ভুল কমবে।

(গ) প্রয়োজনে সহায়িকার সাহায্য নিতে পারো।

(ঘ) বেশি সময় না থাকার জন্য, যে প্রশ্নগুলি বিভিন্ন বছরের পরীক্ষায় এসেছে সেগুলিকে সহায়িকার সাহায্য নিয়ে পড়ে নিয়ে নিজের ভাষায় লিখতে অভ্যাস কর।

(ঙ) অকারণে প্রশ্নের উত্তর দীর্ঘ করবে না।

(চ) হাতের লেখা পরিষ্কার করতে হবে।

(ছ) পয়েন্ট করে লিখবে।

(জ) দুই তিন রকম কালী ব্যবহার করতে গিয়ে অযথা সময় নষ্ট করবে না।

(ঝ) প্রথম থেকে দ্রুত লিখবে যাতে সময়ের মধ্যে সন প্রশ্নের উত্তর শেষ করতে পারো।

(ঞ) ছোট প্রশ্ন একদম ছাড়বে না, এম.সি.কিউ গেস করে হলেও উত্তর দেবে।

এইভাবে একটু চেষ্টা করলেই তোমরা তোমাদের জীবনের প্রথম পরীক্ষায় সঠিক রূপে উত্তীর্ণ হবেই।

 

শুরু হচ্ছে সংবাদ প্রতিখনের নতুন বিভাগ “পড়াশোনা”। ছাত্র-ছাত্রীরা তোমাদের সঙ্গে এই বিভাগে তোমাদের নানান প্রশ্নের উত্তর নিয়ে থাকবেন অভিজ্ঞ শিক্ষক-শিক্ষিকাগণ। তোমরা তোমাদের প্রশ্ন আমাদের দপ্তরে পাঠাতে পারো ই-মেল করে

Editor@sambadpratikhan.com এই ই-মেল এ