খবর

কবিগুরুর জন্মদিনের প্রাক্কালে অসাধারণ উপস্থাপনা TV9 বাংলার ‘রবি ঠাকুরের জন্মদিনে’

0214563

SP-TV-9

বিশেষ প্রতিবেদন: বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের জন্মদিন উপলক্ষে সারা দেশে শুরু হয়েছে কবিগুরুকে স্মরণ করে নানান অনুষ্ঠান। ‘রবি ঠাকুরের জন্মদিনে’ শীর্ষক এক অসামান্য অনুষ্ঠান উপস্থাপন করল TV9 বাংলা কবির জন্মদিনের প্রাক্কালে অর্থাত্‍ ৮ মে রাত দশটায় তাঁদের নিউজ সিরিজ অনুষ্ঠানে।

কবির জীবনের প্রথম জন্মদিন পালন থেকে শেষবার জন্মদিন উৎসব-উদযাপনের কিছু গল্পে ভোর ছিল এই অনুষ্ঠান। বিলেত থেকে ফিরে ঠাকুরবাড়িতে জন্মদিন পালনের রেওয়াজ চালু করেছিলেন রবীন্দ্রনাথের মেজদা সত্যেন্দ্রনাথ ঠাকুরের স্ত্রী জ্ঞানদানন্দিনী দেবী। তবে ২৬ বছর পর্যন্ত রবীন্দ্রনাথের জন্মদিনে উৎসব হয়নি। কীভাবে পালিত হয়েছিল তাঁর প্রথম জন্মদিন? সে সময় রবীন্দ্রনাথ ছিলেন ৪৯ নম্বর পার্ক স্ট্রিটের বাড়িতে। পার্ক স্ট্রিটের সেই বাড়িতে মেজদা সত্যেন্দ্রনাথ ও মেজবউঠান জ্ঞানদানন্দিনী দেবীর সঙ্গে ছিলেন রবীন্দ্রনাথ। ২৬ পেরিয়ে ২৭-এ পা দিয়েছেন কবি। সেই বাড়িতেই জীবনের প্রথমবার জন্মদিন পালন হল কবির। দিনটা ছিল ১৮৮৭-এর ৭ মে, শনিবার। রবিমামার প্রথম জন্মদিন উৎসবের আয়োজন করেছিলেন ভাগ্নি সরলা দেবী। দেখতে দেখতে এক একটা বসন্ত পেরিয়েছেন কবি।

আর নতুন নতুন জন্মদিন ছায়া ফেলেছে তাঁর জীবনে। ১৯০২-এর ৮ মে শান্তিনিকেতনে পারিবারিক ঘেরাটোপের বাইরে কবির ৪২ বছরের জন্মদিন পালন করা হয়। তবে জন্মদিনের উৎসবে আড়ম্বর নিয়ে তীর্যক কটাক্ষও ধেয়ে এসেছিল কবির দিকে বারবার। বেদনা-অভিমানে সে সবের জবাবও দিয়েছিলেন কবি। কবিকে সামনে বসিয়ে জন্মদিনের শেষ উৎসব হয়েছিল ১৯৪১-এর পয়লা বৈশাখে। অভিনন্দন বার্তা পাঠিয়েছিলেন মহাত্মা গান্ধীও। শেষ জন্মদিনের দু-দিন আগে ২৩ বৈশাখ কবি লিখেছিলেন, ‘হে নূতন, দেখা দিক আর-বার জন্মের প্রথম শুভক্ষণ’। গল্প আর গানের মধ্য দিয়ে কবির জীবনের নানা কথা প্রতিফলিত হয়েছে এই অনুষ্ঠানে। অনুস্থাংটি আবার দেখা যাবে কবির জন্মদিনের শুভলগ্নে ২৫ বৈশাখ (৯ মে) সকাল ১০টায়। untitled-2-1untitled-1-3untitled-3latest-advt-of-jotishK S FIRE INSTITUTEadvt-1advt-3advt112-for-advt-sankha-senfor-nws1efab-9a4f02_51435a5163204d4c9eb67ab6f3a56a68mv292a03-9a4f02_3b93dab5c7d14f67afae52ceac3ab2d5mv2advt-4