বর্তমান সময়

আপনার জীবন কী নানা সমস্যায় জর্জরিত? আপনাদের সমস্যার সমাধানে জ্যোতিষরত্ন বিশ্বেশ্বর ব্যানার্জী

JJJJJJJJJJব্যবসায় সাফল্য পেতে কী করবেন বা কি বাস্তুসম্মত উপাচার মানলে ব্যবসায় সমৃদ্ধি হবে ব্যবসায় অর্থনৈতিক সাফল্য বা লাভ সমৃদ্ধি করতে হলে কি করবেন

প্রথমত ব্যবসার যে দিক বা যে মুখে বসে ব্যবসা করা উচিত উত্তর পূর্ব দিকে মুখ করে ব্যবসা করা উচিত কাস্টমার ডিলিংস সবসময় উত্তর পূর্ব দিকে মুখ করে করা উচিত এবং দোকানের ক্যাশবাক্স সব সময় ইষান কোন বা উত্তর পূর্ব দিকে রাখা উচিত এবং দোকানের সামনে প্রতি শনি মঙ্গলবার তিনটে লেবু এবং তার মাঝখানে তিনটে কাঁচা লঙ্কা সবুজ ঝুলিয়ে দেওয়া উচিত এবং দোকানের ইষান কোনে বা উত্তর পূর্ব দিকে একটি ডানদিকে শুড় এরকম একটি গনেশের মূর্তি এবং লক্ষী কুবেরের ছবি বা মূর্তি রাখা উচিত এবং প্রতি সন্ধায় অমাবস্যার জোয়ারের জল ছিটোনো এবং এবং নারকেল ছোবরায় ধূনো,কর্পুর,গুগ্গুল সহযোগে দোকানে দেওয়া উচিত এবং ক্যাশবাক্সে একটি রুপোর হাতি রাখা উচিত যার শুঁড়টি ডানদিকে।এবং ব্যবসার স্থানের যে মেঝে বা ঘরটি আছে সেটিকে সন্ধব লবন এবং হলুদ মিশিয়ে ঘরটি মুছুন।

শরীর স্বাস্থ্য ভালো রাখতে বা শরীর স্বাস্থ্যের   উন্নতি ঘটাতে কি করবেন বা কি মন্ত্র পাঠ করলে শরীর স্বাস্থ্যের উন্নতি হবে

শরীর স্বাস্থের উন্নতি করতে হলে প্রথমে বাড়ির পূর্ব এবং উত্তর পূর্ব দিকটিকে পরিষ্কার রাখতে হবে এবং লাল,এবং হলুদ রঙ করতে হবে এবং বাড়ির  পূর্ব দিকটি খোলা রাখতে হবে এবং বাস্তুশাস্ত্রের ব্রহ্মস্থানটিকে পরিষ্কার রাখতে কোনও নোংরা আবর্জনা,ভারি জিনিস রাখা যাবে না বা ওখানে বসে খাওয়া যাবে না এবং মহামৃত্যুঞ্জয় মন্ত্র প্রতিনিয়ত পাঠ করতে হবে ১০৮ বার/১১বার এবং /২১ বার।

মন্ত্রটি হল

ওঁ ত্রম্ব্যকং যাযামহে সুগন্ধিম পুষ্টিবর্ধনম উর্বারুকমিব বন্ধ্যনা মৃত্যুমুক্সীয়ামামৃতা।

ওঁ জুং স পালায় পালায় স জুং ওঁ নমঃ।

ওঁ তৎপুরুষায় বিদ্মহে বেদমহীমহাদেবায় তন্নরুদ্রপ্রচ্যোদোয়াত। এই পুরো মন্ত্রটি পাঠ করতে হবে।

সকালে ঘুম থেকে উঠে কি মন্ত্র পাঠ করলে সারা দিনটি ভাল যাবে?

সকালে ঘুম থেকে উঠে প্রথমে নিজের দুহাতের করতল দু চোখের সোজাসুজি রাখতে হবে এবং করতলের দিকে তাকিয়ে  বলতে হবে করাগ্রে বসতে লক্ষী করমধ্যে সরস্বতী করমূলে স্থিত ব্রহ্মা প্রভাতে চ করদর্শনম। এরপর তিনবার এক ঘট করে জল খাবেন অচ্যুতায় নমঃ,কেশবায় নমঃ,অনন্তায় নমঃ,  এরপর বিছানা থেকে নামার সময় বা মাটিতে পা স্পর্শ করার আগে মাটিকে একবার প্রনাম করে মাথায় হাত দিয়ে বলবেন সমুদ্রে বসনে দেবী পর্বতস্ত নমন্ডলে বিষ্নুপত্নী নমস্তভ্যং পাদস্পর্শং ক্ষমস্ব মে। এরপর পাঁচজন কন্যার নাম স্মরণ করবেন “অহল্যা দ্রোপদী তারা কুন্তি মন্দদরী তথা পঞ্চকন্যা স্বরেন্নিত্যং মহাপাতক নাশনম।”

LATEST ADVT OF JOTISH