খবর

‘সৌমিত্র পুনরায় সাক্ষাৎ’ শীর্ষক বিশেষ চলচ্চিত্র প্রদর্শনী

Untitled-1

নিজস্ব সংবাদদাতা: ভারতীয় চলচ্চিত্রের অন্যতম বিখ্যাত শিল্পী, বাংলার সেরা এবং সবচেয়ে প্রিয় অভিনেতাদের মধ্যে অন্যতম সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের জীবনাবসান হয়েছে ১৫ই নভেম্বর। সত্যজিৎ রায়ের ১৪টি চলচ্চিত্রে সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় অভিনয় করেছেন। তাঁর প্রথম চলচ্চিত্র অপুর সংসার। ১৯৩৫ সালে জন্ম সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের। নাটকের মধ্যে দিয়ে তাঁর চলচ্চিত্রে আসা। জীবদ্দশাতেই তিনি কিংবদন্তী হয়ে উঠেছিলেন। তবে কেবল সত্যজিৎ রায়ের ছবিতেই নয়, মৃণাল সেন, তপন সিনহা, গৌতম ঘোষ, অপর্ণা সেন, ঋতুপর্ণ ঘোষ, তরুণ মজুমদার এবং অন্যান্য বিশিষ্ট চলচ্চিত্র নির্মাতাদের একাধিক চলচ্চিত্রে স্মরণীয় অভিনয় করেছেন। তিনিই প্রথম ভারতীয় চলচ্চিত্র ব্যক্তিত্ব যিনি ফ্রান্সের শিল্পীদের জন্য প্রদে সর্বোচ্চ সম্মান কমান্ডিউর ডে ল’ অর্ড্রে ডেস আর্টস এট ডেস লেট্রেস(Commandeur de l’ Ordre des Arts et des Lettres) সম্মানে ভূষিত হয়েছিলেন। এছাড়াও তিনি ভারতীয় চলচ্চিত্রের সর্বোচ্চ সম্মান দাদাসাহেব ফালকে পুরস্কার, পদ্মভূষণ, জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার সহ একাধিক পুরস্কার পেয়েছিলেন। চলচ্চিত্র বিভাগ এই কিংবদন্তী শিল্পীর প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে  তাঁর জীবন ভিত্তিক ‘সৌমিত্র পুনরায় সাক্ষাৎ’ শীর্ষক একটি স্বল্প দৈঘ্যের চলচ্চিত্র প্রদর্শনীর আয়োজন করেছে। বিশিষ্ট চলচ্চিত্র নির্মাতা  সন্দীপ রায়ের তৈরি ৪৬ মিনিটের ইংরাজি ভাষায় এই চলচ্চিত্রটি ১৮ নভেম্বর ২০২০ প্রদর্শিত হবে। এর পাশাপাশি সন্দীপ রায়ের তৈরি ‘মাস্টার্স টাচ’ শীর্ষক ১৬ মিনিটের আরও একটি ইংরাজি স্বল্প দৈঘ্যের চলচ্চিত্র প্রদর্শিত হবে। মূলত এই চলচ্চিত্রটি সৌমিত্র চট্রোপাধ্যায়ে অঙ্কন শৈলীর ওপর ভিত্তি করে নির্মিত। ‘সৌমিত্র পুনরায় সাক্ষাৎ’  শীর্ষক  স্বল্প দৈর্ঘ্যে চলচ্চিত্রের মধ্যে দিয়ে বহুমুখী সাংস্কৃতিক ব্যক্তির জীবন ও কাজের বিভিন্ন দিক যেমন চলচ্চিত্র, নাটক এবং টেলিভিশনে অভিনয়, কবি, চিত্রশিল্পী, সম্পাদনা, খেলাধুলার প্রতি বিশেষ আগ্রহ ইত্যাদি বিষয় তুলে ধরা হয়েছে। এই চলচ্চিত্রের মধ্যে দিয়ে তাঁকে যথাযথভাবে বাংলা চলচ্চিত্রের ‘রেনেসাঁস ম্যান’ হিসেবে চিন্থিত করা হয়েছে। এই তথ্যচিত্রটি দেখা যাবে চলচ্চিত্র বিভাগের ওয়েবসাইটে- http://www.filmsdivision.org/Documentary of the Week  এবং ইউটিউব চ্যানেল –  https:// www. youtube.com /user/FilmsDivision-  তে।

সংবাদ সৌজন্য পিআইবি