খবর

হাওড়ার আন্দুলে রক্ত পরীক্ষার রিপোর্টে পুরুষ হয়ে গেলেন মহিলা ডায়াগোনেস্টিক সেন্টারের কৃপায়

report-1-apurba-fguptaনিজস্ব সংবাদদাতা, হাওড়া: আরও একবার আমাদের এই রাজ্যের বেসরকারী স্বাস্থ্য পরিষেবা যে কি ভয়ংকর ভাবে সাধারণ মানুষকে বিপথে পরিচালিত করছে তার প্রমাণ পাওয়টা গেল। এবার হাওড়ায়, এই ঘটনাটা একটু অন্য রকমের। হাওড়া আন্দুলের বাসিন্দা আমাদের সংবাদ মাধ্যমের সঙ্গে যুক্ত অপূর্ব গুপ্ত তাঁর রক্ত পরীক্ষা করার জন্য আন্দুলের সুরক্ষা ডায়াগোনেস্টিক সেন্টার থেকে গত ৩ সেপ্টেম্বর, ২০২০  রক্ত পরীক্ষা করান। দুঃখের বিষয় তিনটি রক্ত পরীক্ষার রিপোর্টে দুটিতে তাঁকে পুরুষ  হিসাবে দেখানো হয়েছে কিন্তু অপর রিপোর্টে অপূর্ব বাবু কোনও এক অজ্ঞাত কারণে সুরক্ষা ডায়াগোনেস্টিক সেন্টারের কাছে লিঙ্গ পরিবর্তণ করে মহিলা হয়ে গেলেন। এক্ষেত্রে প্রশ্ন উঠছে যে রিপোর্টে ওনাকে মহিলা বলে দেখিয়েছেন সুরক্ষা ডায়াগোনেস্টিক সেন্টার, ওই রিপোর্ট টি কি অপূর্ব বাবুরই, নাকি অন্য কোনও মহিলার। আমরা জানি কিছুকিছু রক্ত পরীক্ষার রিপোর্টে পুরুষ এবং মহিলাদের আলাদা আলাদা মাত্রা থাকে নর্মাল বা নেগেটিভ বিষয়ে, রক্তের রিপোর্ট সঠিক না হলে নির্দিষ্টি রোগীর চিকিত্‍সাতেও তার প্রভাব পড়ে, এসব জেনেও কি করে এমন বড় একটা ভুল করে বসলেন তা অজানা।money-receipt-apurba-gupta

report-apurba-gupta

এই  বিষয়ে আন্দুলের ওই ডায়াগোনেস্টিক সেন্টারের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে সেন্টারের প্রধান গৌতম বাবু বলেন একটা ভুল হয়ে গেছে, রক্ত পরীক্ষার রিপোর্টটি কি অপূর্ব বাবুরই কিনা জানতে চাইলে কোনও সঠিক সদুত্তর ওনার কাছ থেকে পাওয়া যায় নি ও এই বিষয়ে সঠিক কিছু বলতে পারেন নি। চিকিত্‍সাকে নিয়ে ব্যবসা আমাদের দেশে নতুন কিছু নয়, তবে একটি বিষয় ভাববার সময় এসে গেছে এই সকল অগুন্তি প্যাথোলজিক্যাল পরীক্ষাকেন্দ্রগুলি কতটা সঠিক ভাবে ও কতটা নির্ভুলভাবে তাদের কাজ করে চলেছে সেই বিষয়ে।

বিজ্ঞাপন

advt-5advt-4advt-1advt-2advt-3