খবর

মাঠ বাঁচাতে মাঠেই প্রতিবাদ এলাকাবাসীর

konnangar-2.jpgপ্রবীর বোস, হুগলি: প্রোমোটারের হাত থেকে বাঁচাতে হবে খেলার মাঠ,এই দাবি নিয়ে এলাকা বেশ কয়েকদিন ধরে উত্তপ্ত। বাঁচাতে হবে সবুজ কে, আর সেই কারনেই মাঠ বাঁচাতে বৃষ্টি কে উপেক্ষা করেই পথে নামল এলাকার নবীন থেকে প্রবীন। বাদ যায়নি বাড়ির মহিলারাও। হুগলির কোন্নগর পৌরসভার হাতিরকুল এলাকার এক নম্বর ওয়ার্ডের ঘটনা। এই ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়ায় এলাকায়।  ঘটনা স্থলে দেখা যায় মহিলা থেকে শিশু সহ বাড়ির গৃহ কর্তা থেকে ছোট ছোট ছেলেমেয়েদের। সঙ্গে সমান ভাবে ছাতা মাথায় প্রতিবাদ করতে নেমেছে এলাকার কাউন্সিলর মোনালিসা নাগ। অসাধু প্রোমোটার চক্রকে সাহায্য করতে পারে পুলিশ এই কথা শুনে এলাকার সমস্ত বাসিন্দারা সকাল থেকে খেলার মাঠে এসে হাজির হন এমনকি বাড়ির ছেলেদের খেলতে নামিয়ে দেওয়া হয় মাঠে।

এলাকার বাসিন্দা দের অভিযোগ গত পঞ্চাশ বছরের বেশি সময় ধরে এই মাঠ এলাকার খেলার মাঠ হিসেবে পরিচিত এমন কি এলাকার বাইরে বহু স্কুলের ক্রীড়া প্রতিযোগিতা হয় এখানে। তবে যে ব্যক্তি এই মাঠ নিজের সম্পত্তি বলে দাবি করেছেন তা সম্পুর্ন মিথ্যা কথা বলে দাবি ওই মাঠ বাঁচাও সংঘঠনের প্রাক্তন সভাপতি বিধান ভট্টাচার্য’র। অন্য দিকে এই মাঠ অধিগ্রহণ করতে বেশ কয়েকদিন আগে স্থানীয় সমাজবিরোধী দের নিয়ে গেলে এলাকার বাসিন্দাদের বাঁধা পেয়ে পিছু হটতে বাধ্য হয়। স্থানীয় ক্রীড়া প্রেমী জয়ন্ত চক্রবর্তী বলেন খেলার মাঠ দখল করা খুব অন্যায়, এলাকায় একটাও মাঠ নেই এই মাঠটাও যদি অসাধু প্রমোটাররা নিয়ে নেয় তাহলে ছেলে মেয়েরা কি চাঁদে খেলতে যাবে? আমরা এই মাঠ দখলের বিরুদ্ধে রাস্তায় নেমে প্রতিবাদ করছি আর করবো।