প্রতিখনের রান্নাঘর

প্রতিখনের রান্নাঘর-‘দুধ চিনির পরোটা’

আজকের রান্নাঘরে হুগলি জেলার সিঙ্গুর নিবাসী মৌসুমী দো নিবেদন করছেন ‘দুধ চিনির পরোটা’

photo

আজকের রেসিপি হল -‘দুধ চিনির পরোটা’। ঘরে থাকা সামান্য কিছু উপকরণ দিয়ে সহজেই এটা বানানো যায়।

kitchen.3

উপকরণ :  ১.আটা /ময়দা  ২.গুঁড়ো দুধ  ৩.চিনি  ৪। সাদা তেল

পদ্ধতি: এই পরোটাটি বানানোর জন্য আটা/ময়দা যে কোনো একটা ব্যবহার করা যেতে পারে। আমি ময়দাই ব্যবহার করেছি। ময়দার মধ্যে সামান্য পরিমাণ লবণ, সামান্য পরিমাণে সাদা তেল নিয়ে ভালো করে ময়ান দিতে হবে। এবার পরিমাণ মতো উষ্ণ গরম জল দিয়ে ময়দাটা ভালোভাবে নরম করে মেখে নিতে হবে। তবে, আপনারা চাইলে এখানে জলের পরিবর্তে দুধ ব্যবহার করতে পারেন। ময়দা মেখে ঢাকা দিয়ে ১৫-২০ মিনিট মতো রেখে দিলাম। এবার ওই ময়দা থেকে মাঝারি আকারের লেচি কেটে নিলাম। এবার একটা লেচি থেকে পরোটা বেলে নিলাম । এরপর ওই বেলে নেওয়া পরোটার মধ্যে ১.৫ চা-চামচ চিনি এবং ১-১.৫ চা-চামচ গুঁড়ো দুধ ছড়িয়ে দিয়ে পরোটাটা ভাঁজ করে নিলাম চৌকো করে। মিষ্টির পরিমাণটা প্রত্যেকেই নিজেদের স্বাদ মতো দেবেন। ওই ভাঁজ করা পরোটাটা বেলে নিলাম। এভাবেই প্রত্যেকটা লেচি থেকে পরোটা বেলে, তাতে চিনি আর গুঁড়ো দুধ ভরে আবার বেলে নিলাম। এবার কড়াই গরম হলে, প্রথমে একটা পরোটা দিলাম। পরোটার দুই পিঠ মাঝারি আঁচে সেঁকে নিলাম। এবার পরোটার দুই পিঠে এক চামচ করে তেল ছড়িয়ে ভেজে নিলাম। পরোটার মধ্যে থাকা চিনি গলে বাদামী রঙের হয়ে এলেই বুঝতে হবে পরোটাটা ভাজা হয়ে গেছে। প্রত্যেকটি পরোটাই এভাবে মাঝারি আঁচে ভেজে নিলাম। এই পরোটা স্বাদে মিষ্টি হওয়ায় শুধুই খাওয়া যায়। তবে আপনারা চাইলে, এই পরোটাগুলো মিষ্টি বা মিষ্টি জাতীয় আইটেমের সাথেও পরিবেশন করতে পারেন।

এই বিভাগ সম্পুর্নরূপে আপনাদেরআপনার আপনাদের সেরা রেসিপি আমাদের দপ্তরে ই-মেল করে পাঠিয়ে দিন, আমরা আপনাদের ছবি সহ তা প্রকাশ করব