খবর

পঙ্কজ চক্রবর্তীর স্মরণে স্মরণিকা প্রকাশে চাঁদের হাট হুগলির সিঙ্গুরে

0214563

pc-2

পথিক মিত্র, হুগলি: বঙ্গ সংস্কৃতির অঙ্গনে এমন কিছু কিছু মানুষের আবির্ভাব হয় যাঁদের আমরা অনুকরণ কেন অনুসরণ ও করতে অসমর্থ হই। অতি সাধারণ সাদামাটা জীবনযাপন স্বত্বেও স্বকীয় শিল্প প্রতিভায় এই মানুষগুলি সংস্কৃতির অঙ্গন সহ সাধারণ মানুষের মননে চিরভাস্বর হয়ে থাকেন এবং থাকবেন আজীবন। মরণও কাড়তে পারে না এনাদের জীবনের চলার পথে সৃষ্টি করে যাওয়া অমর সৃষ্টিকে। এমনই এক সাধারণ অথচ অসাধারণ হয়ে ওঠা কবি-সাহিত্যিক-গল্পকার হিসেবে পরিচিত মানুষ ছিলেন হুগলি জেলার ভূমিপুত্র পঙ্কজ চক্রবর্তী। নিজ লেখনীর মাধ্যমে যিনি নিজেকেই অমর করে গেছেন। একথা বলা বাহুল্য তাঁর প্রয়াণ বঙ্গ সংস্কৃতি জগতে এক শূন্যতার সৃষ্টি করেছে, তিনি অমর হয়ে থাকবেন তাঁর সৃষ্টিতে। এহেন মাটির মানুষ, অতি সাধারণ জীবনযাপনে অভ্যস্ত পঙ্কজ চক্রবর্তীর প্রয়াণে এখনো শোকস্তব্ধ বাংলার শিল্পী সাহিত্যিক মহল। তারই প্রমান পাওয়া গেলো হুগলি জেলার সিঙ্গুরের অনুভব সাহিত্য মঞ্চের প্রধান কান্ডারী ডাঃ বলদেব দাসের ব্যবস্থাপনায় পঙ্কজ চক্রবর্তী’র স্মরণে এক স্মরণিকা প্রকাশ ও পঙ্কজ চক্রবর্তীর স্মরণ সভায়।

রবিবার ১০ জুলাই এর সারাদিনের এই অনুষ্ঠানে সিঙ্গুরের জামিনবেড়িয়া সেবায়তন স্কুল অফ মেডিকেল টেকনোলজির সভাগৃহে চাঁদের হাট বসেছিল। পঙ্কজ চক্রবর্তীর স্মরণে এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন কবি রামকিশোর ভট্টাচার্য্য, গীতিকার ও সুরকার জয়ন্ত পাঠক, কবি তাপস রায়, কবি সাধন বারিক, স্বামী প্রভানন্দ সহ পঙ্কজ চক্রবর্তী’র স্ত্রী ও পুত্র। ভাবগম্ভীর এদিনের অনুষ্ঠান প্রসঙ্গে অনুষ্ঠানের প্রধান কান্ডারী ডাঃ বলদেব দাস সংবাদ প্রতিখনকে জানান, কবি সাহিত্যিকদের নিয়ে এই ধরণের অনুষ্ঠানের মূলে ছিলেন পঙ্কজ চক্রবর্তী নিজেই, আর আজ তাঁকেই স্মরণ করে এই অনুষ্ঠান আয়োজন করতে হচ্ছে যেটা মন থেকে মেনে নেওয়া যায় না। এর সঙ্গে সঙ্গে তিনি বলেন আজকের এই স্মরণ সভা ও এই অনুষ্ঠানকে স্বার্থক করে তুলতে পঙ্কজ চক্রবর্তীই অলক্ষে থেকে পরিচালনা করছেন, না হলে এতো গুণী মানুষকে একসঙ্গে এদিন পাওয়া সম্ভব হতো না। এদিনের অনুষ্ঠানে উদ্বোধনী সংগীত পরিবেশন করেন মৃন্ময় সুর।

Final advtadvt-2HIRINGadvt-1advt-31efab-9a4f02_51435a5163204d4c9eb67ab6f3a56a68mv292a03-9a4f02_3b93dab5c7d14f67afae52ceac3ab2d5mv2advt-4latest-advt-of-jotish