খবর

‘প্রথমবার ধর্ষণকে একটা রাজনৈতিক অস্ত্র হিসাবে ব্যবহার করা শিখলাম মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রীর কাছ থেকে’- অগ্নিমিত্রা পল

agnimitra.polসঞ্জয় মুখোপাধ্যায়, সংবাদ প্রতিখন:  পশ্চিমবঙ্গের অন্যতম তৃণমূল কংগ্রেস নেতা শুভেন্দু অধিকারীর মন্ত্রীত্ব থেকে পদত্যাগের বিষয়ে রাজ্যের মুখমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে এক হাত নিলেন রাজ্য বিজেপির মহিলা মোর্চার সভানেত্রী অগ্নিমিত্রা পাল। তিনি বলেন ‘শুভেন্দু অধিকারীর পদত্যাগ করারই কথা, ওনার মত দক্ষ সংগঠক যাঁদের মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী বা যে কোন নেতাকেই তোষামোদ করার দরকার পড়ে না তাঁর তৃণমূলে থাকতে পারবেই না।’ কারণ হিসাবে অগ্নিমিত্রা বলেন, ‘রাজ্যে তৃণমূল কংগ্রেসের সরকারের মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী নিজের ভাইপোকে ছাড়া আর কাউকেই মান্যতা দেন না,’ তৃণমূল কংগ্রেসেকে চোরেদের দল বলে আখ্যা দিয়ে অগ্নিমিত্রা বলেন, ‘এই দলে কোন ভাল মানুষ থাকবেন কেন?’ শুভেন্দু অধিকারীর বিজেপিতে যোগদানের বিষয়ে তিনি বলেন, ‘আমি শুনছি তাঁরা ভারতীয় জনতা পার্টিতে যোগ দেবেন, করাই তো উচিত।’ কারণ হিসাবে তিনি বলেন ‘বিজেপির কেন্দ্রীয় সরকারের প্রধান নরেন্দ্র মোদী বলেন তাঁদের কাছে রাজনীতি র অর্থ জনগণের সেবা।’ অগ্নিমিত্রা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে কটাক্ষ করে বলেন, এই প্রথমবার পশ্চিমবঙ্গের সংস্কৃতিতে ধর্ষণকে একটা রাজনৈতিক অস্ত্র হিসাবে ব্যবহার করা শিখলাম মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রীর কাছ থেকে।’ এবং তিনি বলেন, আর মাত্র ৪ মাস বাকি আগামী ২০২১এর মে মাসে তাঁরা অর্থাত্‍ বিজেপি এই রাজ্যের ক্ষমতা দখল করে সরকার গঠন করে প্রতিটি মেয়েদের ওপর অত্যাচারের কেস তাঁরা খুলবেন, তিনি আরও বলেন ‘ধর্ষণ করে কারও জীবন নষ্ট করা যায় না, কিন্তু যে ধর্ষিতা তাঁর মায়ের মন কাঁদছে এবং সেই মা বিচার চাইছেন, আমি কথা দিয়ে গেলাম সেই মাকে ২০২১ এর মে মাসে এই রাজ্যে সরকার গড়ে সকল অভিযুক্তদের সাজা আমরা দেবই।‘