খবর

‘প্রয়োজনে দল ছাড়বো কিন্তু কোনমতেই দূর্নীতিগ্রস্ত কোনো ব্যাক্তিকে তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি হিসাবে মেনে নেব না’-বিধায়ক রবীন্দ্র নাথ ভট্টাচার্য্য

singurনিজস্ব সংবাদদাতা: হুগলী জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষে শ্রীরামপুরের সাংসদ কল্যান বন্দ্যোপাধ্যায় রবিবার ৮ নভেম্বর ২০২০ এক সাংবাদিক সম্মেলনে জেলার তৃণমূল কংগ্রেসের নতুন কমিটি ঘোষণা করার  সঙ্গে সঙ্গেই এই জেলায় আবারও তৃণমূলের অন্দরে দ্বন্দের ছবি ধরা পড়ল। রীতিমত সাংবাদিকের সামনে হুগলি জেলার প্রবীণ তৃণমূল কংগ্রেস নেতা সিঙ্গুরের চার বারের বিধায়ক রবীন্দ্র নাথ ভট্টাচার্য্য সিঙ্গুর ব্লক সভাপতি গোবিন্দ ধাড়ার নাম ঘোষণার পরই তাঁর ক্ষোভ উগরে দিলেন, এদিন তিনি আগামীদিনে তৃণমূল কংগ্রেসে থাকবেন কিনা তা নিয়েও সন্দেহ প্রকাশ করেছেন। তিনি বলেন দূর্নীতি কে কোনদিন প্রশয় দিইনা ও দূর্নীতিগ্রস্ত কোনো ব্যাক্তিকে তৃণমূল কংগ্রেস দলের সভাপতি মানতে নারাজ। উল্লেখ্য, এদিন দলের নতুন কমিটিতে সিঙ্গুর ব্লক তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি হিসাবে বিধায়ক বেচারাম মান্নার ঘনিষ্ঠ বলে পরিচিত নসীবপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের উপপ্রধান গোবিন্দ ধাড়ার নাম ঘোষণার পরই জেলার প্রবীণ বিধায়ক রবীন্দ্র নাথ ভট্টাচার্য্য তাঁর শিবরামবাটির বাড়িতে রীতিমত সাংবাদিক সম্মেলন ডেকে দলেরই বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিলেন। এদিন রবিবার সন্ধ্যায় বিধায়কের বাড়িতে ব্লকের বিভিন্ন এলাকা থেকে বিধায়ক অনুগামীরা দল ছাড়ার ইঙ্গিতও দিয়েছে এই নিয়োগের কারণে।

output_9W9bpBgif advtUntitled-2Untitled-3Untitled-1