খবর

হুগলিতে প্রচারে রীতিমত ঝড় তৃণমূলের

ELECTION2019সঞ্জয় মুখোপাধ্যায়ঃ একদিকে যখন বিজেপি সহ অন্য রাজনৈতিক দলগুলি তাদের প্রার্থী বাছাই করতে নাজেহাল হচ্ছে, তখন এই রাজ্যের শাসক তৃণমূল কংগ্রেসের নির্ধারিত সকল প্রার্থীরা ব্যস্ত তাদের নিজের নিজের লোকসভা এলাকায় দলীয় সমর্থক সহ সাধারণ মানুষকে সঙ্গে নিয়ে প্রচারে ঝড় তুলতে। রাজ্যের ৪২টি লোকসভা আসনে একই চিত্র পরিলক্ষিত হচ্ছে। অপরদিকে এই রাজ্যের ৪২টি লোকসভা আসনের মধ্যে ২৩টি আসনে জয়লাভের বাসনা নিয়ে ভোটের ময়দানে নামা বঙ্গ বিজেপির ব্রিগেড প্রায় সবকটা কেন্দ্রে দলীয় প্রার্থী নিয়ে বিক্ষোভ সামলাতে ব্যস্ত। প্রার্থী বাছাই নিয়ে প্রবল অসন্তোষের কারণে দীর্ঘ ২৪ বছর বিজেপি করা হুগলি জেলার দাপুটে নেতা বিজেপির রাজ্য সহ-সভাপতি রাজকমল পাঠক পদত্যাগ করেছেন। অপরদিকে এই রাজ্যের বিজেপির সভাপতি দলীয় কর্মীদের নিদান দিয়েছেন সারা রাজ্য থেকে ২৩ টি আসনে বিজেপি প্রার্থীদের জিতিয়ে আনার, এবং দলীয় প্রার্থী নিয়ে কোনও রকম বিক্ষোভ বা অসন্তোষ তারা মেনে নেবেন না। রাজের বামফ্রন্ট এবং রাজ্য কংগ্রেস দ্বিধাগ্রস্ত তাদের প্রার্থী বাছাই নিয়ে। এই মুহূর্তের রাজ্যের বিরোধী দলগুলির অবস্থা প্রায় সকলের অবগত। আর এরই মাঝে আসন্ন নির্বাচনে ফয়দা তুলতে লড়াইয়ের ময়দানে আসীন এবং নিজেদের প্রার্থীর প্রচারে অনেকটাই এগিয়ে রাজ্যের তৃণমূল কংগ্রেস। দেওয়াল লিখন, কর্মীসভা ও পদযাত্রা ইত্যাদির এমনকি দোলের দিন সাধারনের সঙ্গে মিশে নিজেকে রাঙিয়ে নিয়ে নিজেদের ভোট প্রচার অনেকটাই এগিয়ে রাখলেন তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থীরা।

এমনই চিত্র আবারও দেখা গেলো হুগলী জেলার তৃণমূল প্রার্থী কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রচারে। তিনি এই কদিন লাগাতার তার নির্বাচনী কেন্দ্রে প্রচারে ব্যস্ত। অপরদিকে পিছিয়ে নেই অন্য দলের প্রার্থীরাও। এই লোকসভা কেন্দ্রে ভারতের জাতীয় কংগ্রেস সবেমাত্র তাঁদের প্রার্থীর নাম ঘোষণা করতে পেরেছে, অপরদিকে বিজেপির প্রার্থীও যথেষ্ট আশাবাদী এই কেন্দ্র থেকে তিনিই জয়ী হবেন দুই বারের সাংসদকে হারিয়ে, আর বামফ্রন্ট প্রার্থী সবে শুরু করেছেন তাঁর প্রচার। তবে যতই হোক না কেন কল্যাণ বাবুর জেতার ব্যাপারে যথেষ্টই আশাবাদী তাঁর লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূল নেতৃত্ব। এই কদিন কল্যাণবাবু তাঁর লোকসভা কেন্দ্রের যেখানেই প্রচারে গেছেন সেখানেই প্রচুর সাধারণ মানুষ পায়ে পায়ে তাঁর সঙ্গে অংশ নিয়েছেন পদযাত্রায়। গত রবিবার ডানকুনি শহরের চাকুন্দি, খড়িয়াল, পারডানকুনি, মনোহরপুর, গোবরা, কালিপুর, ডানকুনি হাউজিং হয়ে হিমনগর পর্যন্ত বিভিন্ন অঞ্চলে কল্যাণবাবুর নির্বাচনী পদযাত্রায় ঠিক এই চিত্র ধরা পড়ল।

তাঁর এই প্রচারে আবাল-বৃদ্ধ-বনিতা সহ সাধারণের ভিড় ছিলো দেখার মত। এই পদযাত্রায় তাঁর সঙ্গী ছিলেন জেলার তৃণমূলের অন্যতম নেতা সুবীর মুখোপাধ্যায়, কল্যাণ বাবুর নির্বাচনী এজেন্ট তথা উত্তরপাড়া পৌরসভার পুর-প্রধান দিলীপ যাদব, ডানকুনি পুরসভার পুরপ্রধান হাসিনা শবনম, এই পুরসভার উপ-পুরপ্রধান তথা ডানকুনি যুব তৃণমূল নেতা দেবাশীষ মুখোপাধ্যায় সহ তৃণমূল নেতা-নেত্রীর। গতকাল ও আজ সমানতালে একভাবে কল্যাণ বাবু তাঁর প্রচারে রীতিমত ঝড় তুলেছেন তা এই সকল এলাকার সাধারণের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়। (নিজস্ব চিত্র)

rerererer

11429670_863411723736037_573517661987616256_n

banner advt1

gorumara