খবর

রিষড়ার মাদক বর্জিত পূজা

নিজস্ব সংবাদদাতাঃ রিষড়া শিল্পাঞ্চলে জগদ্ধাত্রী পুজোর ইতিহাসে এক বিশেষ পূজা হিসেবে স্থান করে নিয়েছে রিষড়ার পূর্ব পাড়ের রেল স্টেশন সংলগ্ন রিষড়া ইয়ূথ অ্যাসোশিয়েশনের জগদ্ধাত্রী আরাধনা। রিষড়া শহরের মধ্যে অখ্যাত হয়েও তাদের ৩১ বছরের ইতিহাসকে একেবারে বদলে দিয়ে পুজোর পরিবেশকে অনন্য সুন্দর করে সকলের সামনে উপস্থাপিত করছেন রিষড়া ইয়ূথ অ্যাসোশিয়েশনের সদস্যরা তাদের সভাপতি ছোটে দাসের নেতৃত্বে। উল্লেখ করার বিষয় যেটি সেটি হলো ছোটে দাস গত ২০১৭ সাল থেকে এই পুজোর হাল ধরার পর থেকেই তাঁর নির্দেশে এই পুজো পুরোপুরি মাদক বর্জিত পুজো হিসেবে সারা রিষড়া শিল্পাঞ্চলের জগদ্ধাত্রী পুজোয় জায়গা করে নিয়েছে। এই বছর এই পুজো ৩৩ বছরে। তাদের বর্তমান বছরের পুজোর থিম আমাদের শহরাঞ্চলের প্রকৃতি থেকে ক্রমাগত অবলুপ্ত হয়ে যাওয়া প্রজাপতি নিয়ে। তাদের মূল বিষয় ‘প্রজাপতির কুসুম পাখায় মাতৃশক্তি দিশা দেখায়’। মূল ভাবনা ও শিল্পভাবনায় রয়েছেন সনত্‍ দে।

পুজাকে কেন্দ্র করে রিষড়া ইয়ূথ অ্যাসোশিয়েশন বিশ্বজিত সাহার দায়িত্বে আয়োজন করেছে পুজো মণ্ডপের আশেপাশে হস্তশিল্প, কুটিরশিল্প, বই ইত্যাদি নানান পশরা সহযোগে এক মেলার। সভাপতি ছোটে দাস জানলেন তিনি চান তাঁর এই পুজো যেন আগামীর কাছে এক দৃষ্টান্ত স্থাপন করতে পারে মাদক বর্জিত পুজো হিসেবে এবং তিনি আরও জানলেন যেহেতু তাদের পুজো একদম রেল লাইন ঘেঁষা, আর প্রতি বছরই এই জগদ্ধাত্রী পুজোর সময়ে রিষড়ার রেল গেট সংলগ্ন রেল লাইনে কিছু না কিছু দুর্ঘটনা ঘটে থাকে, তাই তাঁরা রেলের সঙ্গে কথা বলে রেল লাইন বরাবর বাঁশের ফেন্সিং দিয়ে দিচ্ছেন যাতে উত্‍সবের দিনগুলোতে কোনরকম দুর্ঘটনা না ঘটে। (ছবি স্বরূপম চক্রবর্তী)

POSTAR--1-FOR-WHTSAPP-ddd