খবর

বেড়াজাল ডিঙ্গিয়ে হাড়িপুকুর এলাকায় হয়ে আসছে কালী পুজো

IMG20181102পল মৈত্র,দক্ষিণ দিনাজপুরঃ দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার হিলি ব্লকের ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তের কাটাতারের বেড়ার ভিতরে হাড়িপুকুর গ্রামের ভৌগলিক অবস্থান।  ভারত-বাংলাদেশ সীমান্ত সংলগ্ন এই হাড়িপুকুর গ্রামে ১৫০টির অধিক পরিবার বসবাস করে। এই গ্রামে বসবাসকারী বাসিন্দাদের মধ্যে অধিকাংশ মানুষই সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ভুক্ত। গ্রামের পুকুরের পাশেই রয়েছে লাল রঙের সান বাধানো মা কালীর স্থান। গ্রামের বাসিন্দারা বংশানুক্রমিকক্রমে দীর্ঘদিন ধরে দীপাবলীর দিন এই স্থানেই মা কালীর পূজা করে চলেছেন। দেবী কালির মূর্তির পরিবর্তে ঘট পূজা হয় এখানে। হিন্দু ধর্মের বৈষনব মতে এই পূজা হওয়ার দরুন এখানে বলি হয় না। দেশের বিভিন্ন প্রান্তে যখন ধর্মীয় ভেদাভেদের প্রাচীর গড়ার প্রয়াস চোখে পড়ছে সেই জায়গায় দাঁড়িয়ে ধর্মীয় সকীর্ণতাকে দূরে ঠেলে দিয়ে হাড়িপুকুর গ্রামের বাসিন্দারা মহাশক্তির আরাধনার অন্যতম উদ্যোক্তা। শুধু দীপাবলীর দিন পূজা করাই শুধু নয়, নিয়মিত দেবীর পূজিত স্থান পরিস্কারও করেন গ্রামের সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ভুক্ত মানুষরা। বি.এস.এফ জওয়ানরাও কালী মাতার এই পূজাতে সহযোগীতা করে। গ্রামের বাসিন্দা আলতাব আলি মন্ডল বলেন পাড়ার পূজার আনন্দে আমরাও সামিল হই এবং আমরা এই পূজায় সহযোগিতা করি। সুতরাং একে অপরের ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত করার পরিবর্তে পরধর্ম সহিষ্ণুতার অন্যতম উদাহরন হয়ে উঠেছে ভারত বাংলাদেশ সীমান্তবর্তী হিলির হাড়িপুকুর গ্রামের এই কালী পূজা, যেখানে শুধুই একতার সুর।(ছবি-নিজস্ব)

Categories: খবর, রাজ্য