Uncategorized

শারদোত্‍সবে মেতে উঠছে বাংলা

ঢাকে কাঠি পড়ে গিয়েছে। মা আসছেন। শারদোত্‍সব কড়া নাড়ছে দোরগোড়ায়, দুর্গোত্‍সবকে কেন্দ্র করে পরিবর্তিত হয় বাংলার অর্থনীতি, তার সঙ্গে সারা বিশ্বের মানুষ আমাদের বাংলার অসামান্য শিল্প-সংস্কৃতি সম্পর্কে সম্যক ধারনা লাভ করেন। পরিবর্তণ আসে পর্যটন শিল্পে সঙ্গে মানুষেরা মেতে ওঠেন অনাবিল আনন্দে। শারদীয়া উত্‍সবকে কেন্দ্র করে সেজে ওঠে গোটা বাংলা। আর গোটা বাংলার সঙ্গে তিলোত্তমা কলকাতাও সেজে ওঠে। কলকাতায় যথারীতি শুরুই হয়ে গিয়েছে পুজোর কর্মকাণ্ড খুঁটি পুজোর মধ্য দিয়ে। গত ২৯ জুলাই দক্ষিণ কলকাতার ভবানীপুরের ৭৫ পল্লীতে হয়ে গেল খুঁটি পুজো।এই পুজো এই বছরে ৫৪ বছরে। এদিনের খুঁটি পুজোয় উপস্থিত ছিলেন বাংলা ক্রিকেট দলের অধিনায়ক মনোজ তেওয়ারী, রাজ্যের পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম, কলকাতা করপোরেশনের মেয়র পরিষদ দেবাশীষ কুমার সহ বিশিষ্ট জনেরা।

ভবানীপুরের ৭৫ পল্লী’র সম্পাদক সুবীর দাস বললেন তারা মূলত যে সকল প্রতিভা বিকশত হয় নি বা হতে পারে না তাদের পদ প্রদীপের আলোয় নিয়ে আসতে চান এবং তাদের দিয়েই তারা তাদের পুজো সাজিয়ে তোলেন। তিনি আর বলেন তারা শুধু মাত্র পুজো করেই তাদের দায়িত্ব শেষ করে দেন না, সমাজের প্রতিও তারা সমান ভাবে দায়বদ্ধ। তাই সারা বছর ধরেই চলে তাদের নানান সামাজিক কর্মকাণ্ড।

Categories: Uncategorized