খবর

নজরুল স্মরণ হুগলিতে

নিজস্ব সংবাদদাতা: কবি নজরুল ইসলাম। গদ্য, পদ্য কবিতা, সঙ্গীত-এই সবই তাঁরই সৃষ্টি। নজরুলের রচনা পূর্ন করেছে সৃষ্টির ভুবন। আজ বিদ্রোহী কবি কাজী নজরুল ইসলামের ৪৭ তম  প্রয়াণ দিবস। তাঁর প্রতি শ্রদ্ধা জ্ঞাপনের জন্য হুগলী সংশোধনাগারের সামনে আয়োজন করা হয়েছিল এক অনুষ্ঠানের। কাজী নজরুলের মর্মর মূর্তিতে মাল্যদান করে শ্রদ্ধা জানাতে উপস্হিত হয়েছিলেন বিশিষ্ট জনেরা। ১৯২৩ সালে জানুয়ারী মাসের শেষ পক্ষ, ধূমকেতু পত্রিকায় বৃটিশ বিরোধী কবিতা প্রকাশ এবং রাজদ্রোহের অপরাধে হুগলী জেলে এসেছিলেন কারাদন্ডের হুকুমে। তখন এগিয়ে এসেছিলেন হুগলী-চুচুঁড়ার স্বাধীনতা সংগ্রামী সিরাজুল হক, হামিদুল হক,  কবি সুবোধ রায় সহ আরও অনেকে। হুগলী জেলের সুপারিন্টেনডেন্ট আর্সটন তখন রাজনৈতিক বন্দীদের ওপর ভীষন অত্যাচার চালালে নজরুল তার প্রতিবাদ করেছিলেন। আর এই জেলের ৫ নং সেলে বসে নজরুল লিখেছিলেন কারার ঐ লৌহকপাট/ভেঙে ফেল্ রলে লোপাট/ রক্ত জমাট/ শিকল পূজার পাষাণ বেদী। এই স্মৃতিতে সংশোধনাগারের সম্মুখে বসানো হয়েছে নজরুলের মর্মর মূর্তি।

আজ হুগলী-চুঁচুড়া নজরুল স্মৃতি সংরক্ষণ সমিতি হুগলী সংশোধনাগারের সামনে নজরুল মূর্তিতে মাল্যদান ও সংগীতের মধ্য দিয়ে শ্রদ্ধা জ্ঞাপনের কর্মসূচী পালন করলো। উপস্হিত ছিলেন সংগঠনের সম্পাদক শিশির চক্রবর্তী, অধ্যাপক বদরুল হাসান,  সাংবাদিক শ্যামল সিংহ,  চিত্তপ্রিয় শীল, যাদু ঘোষ, সোমনাথ চট্টাোপাধ্যায় সহ বিভিন্ন সাংস্কৃতিক সংগঠনের বিশিষ্টজনেরা। আবৃত্তি পরিবেশন করেন সোমা দাস। সংগীত পরিবেশনকরেন চেতনা গোষ্ঠী।