Site icon Sambad Pratikhan

দুয়ারে দুয়ারে পশ্চিমবঙ্গ সরকার

Advertisements

সঞ্জয় মুখোপাধ্যায়, সংবাদ প্রতিখন: রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় গতকাল ২৩ নভেম্বর ২০২০, বাঁকুড়া জেলার খাতড়ায় সিধু কানহু স্টেডিয়াম থেকে একগুচ্ছ প্রকল্পের উদ্বোধন, শিলান্যাস ও সরকারি পরিষেবা প্রদান অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়ে ঘোষণা করেন আগামী ১ ডিসেম্বর থেকে ৩০ জানুয়ারী ২০২১ পর্যন্ত দুয়ারে দুয়ারে পশ্চিমবঙ্গ সরকার মানুষের পাশে থাকবে। এই উদয়েসয়ে তিনি ওই মঞ্চ থেকে সকল সরকারী আধিকারিক ও সকলকে রাজ্য সরকারের সকল ডিপার্টমেন্ট নিয়ে ব্লকে ব্লকে ক্যাম্প করতে নির্দেশ দেন। মুখ্যমন্ত্রী সেই ক্যাম্প থেকে সাধারণ মানুষদের দাবিগুলিকে বিবেচনা করে তাঁদের সেই পরিষেবা প্রদান করার আদেশ দেন। প্রতিদিন সকল ১১টা থেকে বেল ৩টা পর্যন্ত এই ক্যাম্প চলবে বলে মুখ্যমন্ত্রী ঘোষণা করেন। বেকারত্ব ইস্যুতে মুখ্যমন্ত্রী কেন্দ্রের বিজেপি সরকারের সমালোচনা করে বলেন সীমিত ক্ষমতার মধ্যে থেকেও যে সকল স্কীম রাজ্য সরকার করেছে তাতে কোনও স্কীম বন্ধ তো হয় নি ও কারও চাকরিও যায় নি। অথচ কেন্দ্রীয় সরকারের বেশ কিছু প্রকল্প কয়েকমাস চলার পর বন্ধ হয়ে গিয়ে সেই সকল প্রকল্পে যারা কাজ করতেন তাঁরা আজ বেকার।  লকডাউন পর্বে সারা ভারতে যখন ৪০ শতাংশ বেকারই বেড়েছে তখন এই রাজ্যে ৪০ শতাংশ বেকারত্ব কমানো হয়েছে বলে দাবি করেন মুখ্যমন্ত্রী।

এছাড়াওএই বাংলায় কোনও সরকারী কর্মী ও শিক্ষক সহ সকলের কোনও মাইনে ও পেনশন কাটা হয়নি ও বন্ধ করা হয়নি। এদিন মুখ্যমন্ত্রী ঘোষণা করেন আগামী দিনে বিরসা মুণ্ডার জন্মদিনে রাজ্যে ছুটি থাকবে। এছাড়াও এদিনের সভা থেকে মুখ্যমন্ত্রী বাউরী সম্প্রদায়দের জন্য বাউরী কমিটি তৈরি করে তার চেয়ারম্যান হিসাবে বাঁকুড়ার দেবদাস দাসের নাম ঘোষণা করেন ও এই কমিটির কাজের জন্য ৫ কোটি টাকা রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে দেওয়া হবে বলেও মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘোষণা করেন। উলেক্ষ্য এদিন সভায় আসার পথে মুখ্যমন্ত্রী খাতড়া পঞ্চায়েতের অন্তর্গত বেঁকিয়া গ্রামে তফসিলি সম্প্রদায়ের মানুষের খোঁজ খবর নিতে তাঁদের সঙ্গে একাত্ম হয়ে তাঁদের সুবিধা অসুবিধার কথা শোনেন গ্রামের মানুষদের সঙ্গে মিশে গিয়ে।

Exit mobile version