খবর

সুর-তাল-ছন্দে মাতিয়ে তুললো গান মেলা

DSC_0049নিজস্ব সংবাদদাতাঃ সংগীতের মেদুরতায় একটা বেলা একদল মানুষ মেতে উঠেছিলো ২ মার্চ, ২০১৯, শনিবার, হুগলি জেলার শ্রীরামপুরে। প্রবীণ-নবীন সকলে মিলে সুর-তাল-ছন্দে একাত্ম হয়ে উপভোগ করলেন সংগীতের অপরূপ ক্ষমতা। গান এমন ম্যাজিক যা যে কোন প্রকৃতির মানুষের মনকে পরিবর্তন করতে বাধ্য হয়। আর এদিন এই অসাধ্য সাধন করলেন হুগলি জেলার অন্যতম প্রাচীন সাংস্কৃতিক শহর শ্রীরামপুর। এই শহরের সংস্কৃতি জগতের একদল মানুষের স্বপ্নের ফসল শ্রীরামপুর গান মেলা কমিটি। শ্রীরামপুর গান মেলা কমিটির প্রথম পদক্ষেপ ছিল প্রথম বর্ষ গান মেলা। শ্রীরামপুর পৌরসভার রাজা কিশোরীলাল গোস্বামী নামাঙ্কৃত টাউন হল মঞ্চে একসঙ্গে প্রায় ৮০ জন নামী-অনামী শিল্পীরা সংগীতের সুর মুর্চ্ছনায় মাতাল করে রাখলেন সমবেত অতিথি ও সুধী দর্শকমণ্ডলীকে।

সবথেকে উল্লেখযোগ্য বিষয়, শ্রীরামপুর গান মেলা কমিটি এদিন সন্ধ্যায় ওই মঞ্চে শ্রীরামপুর শহরের প্রবীণ, গুণী সঙ্গীত বিশারদদের যথাযোগ্য সন্মান প্রদর্শন করেন তাদের হাতে মানপত্র, পুষ্পস্তবক ও উত্তরীয় প্রদান করে সঙ্গীত জগতের দিকপাল সুনীল মল্লিক, বিষ্ণু বন্দ্যোপাধ্যায়, ডঃ রাজা বোস, আশ্চর্যলাল চট্টোপাধ্যায়, শিব শংকর কর্মকার, সুবল লাহিড়ী, লক্ষিকান্ত রায়, নন্দদুলাল সাহা  এবং শ্রীরামপুর থানার আই.সি. দিব্যেন্দু দাস ও শ্রীরামপুর মহিলা থানার অফিসার-ইন-চার্জ বর্ণালী গাঙ্গুলীদের সি সন্মাননা তুলে দেন শ্রীরামপুর গান মেলা কমিটির সকল সদস্য-সদস্যরা।

গান মেলা কমিটির পক্ষে তপন চট্টোপাধ্যায় জানান তাঁরা চান প্রবীণ ও নবীনের মধ্যে এক মেলবন্ধন সৃষ্টি করতে, এছাড়াও তাঁরা আগামীতে শ্রীরামপুর শহরের সকল দুঃস্থ শিল্পীদের পাশে দাড়ানোর অঙ্গীকার করেন, এবং তাঁদের সকলের একান্ত মানসিক ইচ্ছা আগামী বছর থেকে তাঁরা এই গান মেলার আসর বসাতে চান যে কোন মুক্ত মঞ্চে এই শ্রীরামপুর শহরের বুকে।

এদিন গান মেলা কমিটির ডাকে হাজির ছিলেন সঙ্গীত জগতের বহু নক্ষত্র।

(ছবি- স্বরূপম চক্রবর্তী ও দিপান্বীতা দাস)

advt-vromonolife

gorumara

jee-tunes-advt

banner-advt-amitabha

bhuyan-package

jaldapara

bidyasagor-flex